‘নেইমার জানে, কিভাবে এগিয়ে যেতে হয়’

49

বিশ্বকাপের কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে ছিটকে পড়ার পর নেইমার জানিয়েছেন, এটা তার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কষ্টের মুহুর্ত। তবে সে হতাশা কাটিয়ে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ঘুরে দাঁড়াবে বলে বিশ্বাস দেশটির বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কাফু।

সাবেক এই ডিফেন্ডারের দৃঢ় বিশ্বাস, নেইমার জানে হতাশা দূরে ঠেলে কিভাবে সামনে এগিয়ে যেতে হয়।

গত ফেব্রুয়ারিতে ক্লাবের হয়ে খেলার সময় নেইমারের পায়ের মেটাটারসাল হাড় ভেঙে যায়। অস্ত্রোপচারের পর পুরোপুরি সুস্থ হয়ে তার ফিরতে লেগে যায় তিন মাসেরও বেশি সময়। বিশ্বকাপের কিছুদিন আগে প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফেরেন তিনি। কিন্তু দীর্ঘ সময় বাইরে থাকার পর সেরা ছন্দে দেখা যায়নি বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলারকে।

বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচ খেলে করেন দুটি গোল। কোয়ার্টার-ফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে ২-১ গোলে হেরে ছিটকে পড়ে ব্রাজিল। প্রত্যাশা পূরণ না করতে পারার পাশাপাশি ফাউলকে অতিরঞ্জিত করার চেষ্টায় সমালোচনার মুখে পড়েন নেইমার।

অন্য সবার মতো ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জয়ী ফুটবলার কাফুও রাশিয়ায় নেইমারের কাছ থেকে চেয়েছিলেন আরও বেশি। প্রত্যাশা পূরণ না হওয়ায় তাই হতাশা আছে স্বাভাবিকভাবেই। তবে উত্তরসূরির সামর্থ্যে বিশ্বাসের কমতি নেই তার।

“আমরা সেরা খেলোয়াড়ের কাছে অনেক আশা করি। নেইমার এক জন সেরা আর তার কাছে আমাদের প্রত্যাশা, সে মাঠে ভিন্ন কিছু করুক।”

“এটা স্বাভাবিক। আর যা হয়েছে তাতে নেইমারের অবশ্যই সমালোচনা হবে। নেইমারের পারফরম্যান্স প্রত্যাশা অনুযায়ী হয়েছে? না। একটু কম ছিল কারণ সেরা খেলোয়াড়ের কাছে মানুষ আলাদা কিছু আশা করে।”

“তার যদি কিছু বদলাতে হয় কিংবা না হয়, সেটা তার সিদ্ধান্ত। সে জানে, তার ক্যারিয়ারের জন্য, ফুটবলের জন্য কি ভালো।”

বিশ্বকাপে স্বরূপে জ্বলে উঠতে না পারার হতাশা নেইমার কাটিয়ে উঠতে পারবেন বলে বিশ্বাস ১৯৯৪ ও ২০০২ সালে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য কাফুর।

“আমরা নেইমারকে খুশি, খুশি, খুশি দেখতে চাই, কারণ সেটা তার জন্য এবং ব্রাজিলের ফুটবলের জন্য ভালো হবে। সে বুদ্ধিমান। সে জানে, বিশ্বকাপে সে কি করেছে, সে আরও কি ভালো করতে পারে এবং কিভাবে সামনে এগিয়ে যেতে হয়।”

ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ ১৪২টি ম্যাচ খেলা কাফু বিশ্বকাপে আশানুরূপ খেলতে না পারা স্ট্রাইকার গাব্রিয়েল জেসুস ও কোচ তিতের সমালোচনা করেছেন। শেষ আটে বেলজিয়ামের কাছে পরাজয়টা কোচের ‘একটা ভুল’ ছিল বলে মত কাফুর। ম্যানচেস্টার সিটি স্ট্রাইকার জেসুসের গোল না পাওয়ার বিষয়টাও উল্লেখ করেন তিনি।

তবে কোচ তিতে দায়িত্ব পালন করে গেলে তাকে সমর্থন জানাবেন কাফু। তার মতে, সামনে এখনও অনেক কাজ বাকি।