অর্ধকোটি টাকা আত্মসাৎ, ইউপি চেয়ারম্যানকে অপসারণ

159

নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার কোলা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান এসকেন্দার মির্জা বাচ্চুকে অবশেষে চূড়ান্তভাবে অপসারণ করা হয়েছে। গত ৩০ এপ্রিল (মঙ্গলবার) স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে চূড়ান্তভাবে তাকে অপসারণের কথা জানানো হয়।

উপজেলা প্রশাসন ও কোলা ইউপি কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বদলগাছী উপজেলার কোলা ইউনিয়নের ছয়জন ইউপি সদস্য গত ২০১৭ সালের ৫ সেপ্টেম্বর ইউপি চেয়ারম্যান এসকেন্দার মির্জা বাচ্চুর বিরুদ্ধে কোলার হাট ও ভান্ডারপুর হাটের ২২টি উন্নয়ন প্রকল্পের ৫১ লাখ ৩০ হাজার ৯৫১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে তৎকালীন জেলা প্রশাসক ড. আমিনুর রহমানের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। এর প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুম আলী বেগকে ওই বছরের ২১ সেপ্টেম্বর পত্র দিয়ে অভিযোগটি তদন্তের নির্দেশ দেন জেলা প্রশাসক। ইউএনও মাসুম আলী বেগ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসান আলীকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলেন।

তদন্তে উন্নয়ন প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের সত্যতা পায়। তদন্ত কমিটি ১৮ অক্টোবর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে উপযুক্ত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে মর্মে ইউএনও তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন। পরে ২৯ অক্টোবর ইউএনও মাসুম আলী বেগ সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নওগাঁর স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালকে পত্র দেন। এরপর আবারও পুনরায় তদন্ত হয়। ২০১৮ সালের ২৭ নভেম্বর সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় চেয়ারম্যান এসকেন্দার মির্জা বাচ্চুকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

প্রজ্ঞাপন থেকে জানা গেছে, বদলগাছী উপজেলার কোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এসকেন্দার মির্জা বাচ্চুর বিরুদ্ধে একই ইউনিয়ন পরিষদের ছয়জন সদস্য এবং ভান্ডারপুর ও কোলা বাজার বণিক সমিতি কর্তৃক একাধিক ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে টাকা উত্তোলন, ইউপি সচিবের স্বাক্ষর জাল করা, মাটি ভরাটের কাজ না করে টাকা আত্মসাৎ, একই প্রকল্প বার বার দেখিয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হয়। স্থানীয় সরকার বিভাগ ২৭/১১/২০১৮ ইং তারিখে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে। এরপর গত ৩০ এপ্রিল এসকেন্দার মির্জা বাচ্চুকে চূড়ান্তভাবে অপসারণ করা হয়।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান এসকেন্দার মির্জা বাচ্চু বলেন, অপসারণের চিঠি এখনো হাতে পাইনি। তবে শুনেছি আমাকে অপসারণ করা হয়েছে। ইউনিয়নে যে কাজগুলো আমি করেছি সবগুলো দৃশ্যমান। একটি গোষ্ঠী আমাকে ক্ষমতা থেকে নামাতে উঠেপড়ে লেগেছিল। তবে আমার অবস্থান থেকে আমি স্বচ্ছ।

বদলগাছী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুম আলী বেগ বলেন, কোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এসকেন্দার মির্জা বাচ্চুকে অপসারণ করা হয়েছে মর্মে চিঠি পেয়েছি। এখন তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সূত্র : জাগো নিউজ