গণফোরামের নতুন কমিটি ঘোষণা বিকালে, নেতৃত্বে আসছে কারা?

162

বিকালেই ঘোষণা হতে যাচ্ছে রাজনৈতিক দল গণফোরামের নতুন কমিটি। তবে কারা আসছে এবার নতুন কমিটিতে। এদিকে নতুন কমিটিতে সভাপতি পদে আবারও থাকছেন ড. কামাল হোসেন। তিনি ব্যতীত অন্যান্য পদগুলোর ঘোষণার জন্য সংবাদ সম্মেলন করবেন জাতীয় প্রেসক্লাবে। এতে কমিটির সদস্যদের নাম ঘোষণা করবেন দলের বর্তমান সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

রবিবার (৫ মে) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় প্রেসক্লাবে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হবে।

দলীয় সূত্র থেকে জানা গেছে, নতুন কমিটিতে দলের আগের পদেই থাকছেন বর্তমান সভাপতি ড. কামাল হোসেন। আর সাধারণ সম্পাদক হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়ার ছেলে অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া। এছাড়া যুগ্ম সম্পাদক পদটি পাচ্ছেন মোশতাক আহমেদ। এছাড়া বাকি পদগুলির তেমন পরিবর্তন হচ্ছে না। তবে বিশিষ্ট কয়েক ব্যক্তিদের দলের রাখা হচ্ছে কমিটিতে।

সূত্রে আরও জানা গেছে, রেজা কিবরিয়াই যে সাধারণ সম্পাদক হতে যাচ্ছেন বিষয়টি অনেক আগেই নিশ্চিত হয়ে গেছে। কেননা তাকে দলের সাধারণ সম্পাদক করতে ড. কামাল হোসেন বেশি আগ্রহী। বর্তমান পরিস্থিতিতে জাতীয়-আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সব দিক থেকে সক্রিয় এমন ব্যক্তিত্বকে দলের সাধারণ সম্পাদক পদটি দিতে চান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ২৬ এপ্রিল দলের যে বিশেষ কাউন্সিল ডাকা হয়েছে তাতে এ বিষয়টি ফয়সালা হওয়ার কথা থাকলেও গতকাল দফায় দফায় বৈঠকের পর নতুন কমিটির ব্যাপারে দলের হাই কমান্ড সিদ্ধান্ত নেন।

এর আগে বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেন ১৯৯২ সালে আওয়ামী লীগ থেকে বেরিয়ে এসে ১৯৯৩ সালে গঠন করেন গণফোরাম।

১৯৯২ সালের ১৯ এবং ২০ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। কাউন্সিলে জিল্লুর রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এ সময়ে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্যের পদ থেকে বাদ পড়েন ড. কামাল হোসেন।

১৯৯৩ সালের আগস্ট মাসের শেষ দিকে গণতান্ত্রিক ফোরামের তিন দিনব্যাপী জাতীয় মহাসম্মেলন আহবান করা হয়। এ সম্মেলনের মাধ্যমে ১৯৯৩ সালের ২৯ আগস্ট রাজনৈতিক দল গণফোরাম গঠনের ঘোষণা দেয়া হয়। এ সময় তৎকালীন কমিউনিস্ট পার্টির সংস্কারবাদী অংশ, পঙ্কজ ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে ন্যাপ এবং শাজাহান সিরাজের নেতৃত্বে জাসদের অংশ গণফোরামের সাথে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেয়।

ওই সময়ে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গণফোরামে যোগ দেন সিপিবি নেতা সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক, ন্যাপ নেতা পঙ্কজ ভট্টাচার্য, ব্যারিস্টার আমীরুল ইসলাম, আবুল মাল আবদুল মুহিত (সাবেক অর্থমন্ত্রী), শাজাহান সিরাজ (পরে বিএনপি সরকারের মন্ত্রী)। দলের প্রথম আহবায়ক কমিটির সদস্যসচিব ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এর পরে হন সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক। তার মৃত্যুর পর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দু’জন দায়িত্ব পালন করেন। তারা হলেন ইঞ্জিনিয়ার কাসেম ও অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। ২০১১-এর ২৯ আগস্ট মোস্তফা মহসিন মন্টু সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

সূত্র :বিডি২৪লাইভ