বিমান জরুরি অবতরণের আগেই আগুন, নিহত ৪১

242

রাশিয়ার মস্কো বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণের আগেই একটি বিমানে আগুন ধরে যায়। এতে আরোহীদের অন্তত ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৩ টার দিকে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স এ সব তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে সুখোই সুপারজেট-১০০ নামের বিমানটি রোববার স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে পাঁচটায় মস্কোর শেরেমিয়েতোবো বিমানবন্দর থেকে উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় শহর মুরমানস্কের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া বেশ কিছু ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, আরোহীরা ইমারজেন্সি এক্সিট রুট দিয়ে বের হয়ে অগ্নিদগ্ধ বিমানটি থেকে দৌড়ে সরে যাচ্ছেন। যদিও প্রত্যক্ষদর্শী একজন বলছেন প্রাণে রক্ষা পাওয়াটা একটা ‘আশ্চর্য’ ঘটনা।

দুর্ঘটনায় পড়া এ বিমানটিতে ৭৮জন আরোহী ছিলো। নিহতদের মধ্যে দু’জন শিশু ও একজন ফ্লাইট এটেনডেন্টও আছেন।

রাশিয়ান বার্তা সংস্থা ইন্টার ফ্যাক্স জানায় রুশ বিমান সুপার জেট-১০০ সেরেমেতেভো বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পরপরই দুর্ঘটনায় পড়ে। কিন্তু এতো বড় আগুন কিভাবে লাগলো বা কেন বিমানটি জরুরি অবতরণ করতে চেয়েছিলো সেটি এখনও জানা যায়নি।

বিমানটি উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় মারমানস্কের দিকে যাওয়ার কথা ছিলো। রাশিয়ান সংবাদ মাধ্যমে ইন্টার ফ্যাক্স বলছে উড্ডয়নের পরপরই ক্রু বিপদ সংকেত প্রেরণ করেন। একই সঙ্গে বিমানটি জরুরি অবতরণের ক্ষেত্রেও প্রথম দফায় সফল হয়নি।

বিমান ট্রেকিং ওয়েবসাইট ফ্লাইটরাডার২৪ বলছে, উড্ডয়নের ৩০ মিনিটের মধ্যেই জরুরি অবতরণ করে ওই বিমানটি।

এ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীদের একজন ক্রিস্টিয়ান কস্তোভ ঘটনার কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেছেন। বিমানটি দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

ওদিকে রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয়ের প্রধান জানিয়েছেন, হাসপাতালে ছয়জন আছেন এবং এর মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর। সূত্র: বিবিসি