দুই সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

70

জেলার শার্শা উপজেলায় শাশুড়ির সঙ্গে পুত্রবধুর পারিবারিক কলহকে কেন্দ্র করে দুই সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন এক নারী।

রোববার রাত আনুমানিক ১১টার সময় উপজেলার কায়বা ইউনিয়নের চালিতাবাড়ীয়ার দীঘা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। নিহতরা হলেন- ওই গ্রামের চা দোকানি ইব্রাহিমের স্ত্রী হামিদা খাতুন (৩৫), তার মেয়ে শরিফা খাতুন (১২) ও ছেলে সোহান হোসেন (৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্বামী ইব্রাহিম হোসেন ও শাশুড়ি জামিলা খাতুন পারিবারিক বিবাদে দিনভর হামিদাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে হামিদা খাতুন বাজার থেকে বিষ ও গ্যাসের ট্যাবলেট এনে মেয়ে শরিফা খাতুন ও ছেলে সোহান হোসেনকে খাওয়ায়।

পরে নিজেও বিষ ও গ্যাসের ট্যাবলেট একত্রে খেয়ে আত্মহত্যা করেন। ঘটনার সময় স্বামী ইব্রাহিম দোকানে ছিলেন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই সুকদেব জানান, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ ৩টি উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহগুলো যশোর পাঠানো হবে।

সূত্র : সোনালী নিউজ